1. admin@gaibandharmukh.com : Rubel :
শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
সাদুল্যাপুরে সেনা সদস্যের আত্মহত্যা গাইবান্ধার সদরে পূর্ব শত্রুতার জেরে মারামারি, আহত ০৭ গাইবান্ধায় মামলার বাদীকে ফাঁসাতে ঘটনার তিনদিন পর হাসপাতালে ভর্তি হলেন আসামী পক্ষ ।। মামলা তুলে নিতে প্রাণনাশের হুমকি গাইবান্ধায় আমন ধান চাষে ব্যস্ত দিন পার করছে কৃষকরা কবি কন্ঠে কবিতা পাঠ ও মানসিক বিকাশে গ্রন্থাগার স্বামীর অতিরিক্ত ভালোবাসায় বিরক্ত স্ত্রী ,চাইলেন বিচ্ছেদ গোবিন্দগঞ্জে কার্লভাটের মুখ বন্ধ করে দেয়ায় জলাবদ্ধতায়  শতাধিক একর জমির ফসল আবাদে অনিশ্চয়তা গাইবান্ধার কুপতলায় জমি সংক্রান্ত জেরে বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট গাইবান্ধা সদর উপজেলার লক্ষীপুরে জমিজমা জের ধরে প্রতিপক্ষের অস্ত্র ও লাঠির আঘাতে আহত ৪ গোবিন্দগঞ্জে গ্রেনেড হামলায় নিহতের স্মরণে শোক র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

সাদুল্লাপুরে ভাসুর কর্তৃক শারীরিক নির্যাতন হলেন শারমিন

মোঃ আমিনুর রহমানঃ
  • প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০

সাদুল্লাপুর উপজেলায় পারিবারিক কলহের জেরে ভাসুর কর্তৃক এক সন্তানের জননী শারমিন শারীরিক নির্যাতন হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে সাদুল্লাপুর থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। যাহার মামলা নং ১৩, তারিখ ১১/৮/২০২০। থানার এজাহার সুত্রে জানা যায় সাদুল্লাপুর উপজেলার ভাতগ্রাম ইউনিয়নের বিরাহিমপুর গ্রামের তাজুল আকন্দের কন্যা শারমিনের সাথে একই ইউনিয়নের দক্ষিণ সন্তোলা গ্রামের শামসুজ্জোহার পুত্র বাকপ্রতিবন্দী সাগর আকন্দের সঙ্গে ৪ বৎসর পূর্বে পারিবারিক ভাবে বিবাহ হয়। সাগর বাকপ্রতিবন্দী হওয়ায় দূর্বলতার সুযোগে বিবাহের পর হতে সাগরের বড় ভাই রাজিব বিভিন্ন অজুহাতে শারমিনের ওপর মানসিক ও শারিরীক নির্যাতন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ০২/৮/২০২০ তারিখে সকাল ১০.৩০ ঘটিকায় শারমিন বাড়ি যাওয়াকে কেন্দ্র করে ভাসুর রাজিব, শ্বশুর ও শ্বাশুড়ী মিলে শারমিনকে অমানবিক শারিরীক নির্যাতন ও মারপিট করে। এতে শারমিনের ডান হাতের কনুই কবজির মাঝখানে কেঁটে যায়, শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মারপিট করিয়া হাড়ভাঙ্গা জখম করে এবং শারমিনকে ঘরে আটকে রাখে। শারমিনের আত্নচিতকারে স্থানীয় লোকজন শারমিনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সাদুল্লাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এক প্রশ্নের জবাবে শারমিন বলেন- বিয়ের পর হতেই রাজিব ও তার পরিবারের লোকজন বিভিন্ন অজুহাতে অনেকবার মারপিট করেছে। অনেকবার গ্রাম্য শালিস হয়েছে। এলাকার চেয়ারম্যান, মেম্বর, নেতার কাউকে তারা তোয়াক্কা করেনা। তাই আইনের মাধ্যমে আমি কঠিন শাস্তি কামনা করছি। এবিষয়ে সাদুল্লাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদ রানা বলেন- শারমিন নামে এক গৃহবধূ শারিরীক নির্যাতনের এজাহার দায়ের করেছেন। এজাহার আমলে নিয়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামী গ্রেফতারের তৎপরতা চলছে।

এ জাতীয় আরো খবর...

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | গাইবান্ধার মুখ

Theme Customized BY: Shahriar Hossain